পেঁয়াজে আগুন!

Share This Story !

আপনারা যারা নিয়মিত কাঁচাবাজারে যান তারা অবশ্যই জানেন পেঁয়াজের মূল্য প্রতিকেজি ১০০ ছুঁইছুঁই। যদিও এখন ২৩ সেপ্টেম্বর, সোমবার প্রতিকেজি পেয়াজ ৮০ টাকায় কিনতে হচ্ছে। আগামীকাল কতো হবে তা এখনই নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না।

হঠাৎ পেঁয়াজের এমন মূল্য বৃদ্ধিতে ক্রেতাদের মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে। তবে এটা স্পর্শ যে সাধারণ ক্রেতাদের পেঁয়াজের স্বাদে ভাটা পরেছে। পেঁয়াজের উচ্চমূল্যে তাদের সংসার খরচ বেড়েছে। দেশে চাহিদার চেয়ে বেশি পরিমাণে পেঁয়াজ থাকলেও, বর্তমান পেঁয়াজের মূল্য অস্বাভাবিক। দেশে বছরে মোট পেঁয়াজের চাহিদা প্রায় ২৪ লাখ টন।

এর মধ্যে গত ২০১৮-২০১৯ অর্থ বছরে দেশে উত্পাদন হয়েছে ২৩.৭৬ লাখ টন। বাংলাদেশ ব্যাংকের হিসাবে, গত অর্থবছরে আমদানি হয়েছে (ঋণপত্র নিষ্পত্তি) ১০ লাখ ৯২ হাজার টন পেঁয়াজ। সবমিলিয়ে মজুতকৃত মোট পেঁয়াজের পরিমাণ ৩৪ লাখ টনেরও বেশি। যদি ৩ থেকে ৪ লাখ টন ঘাটতি ধরা হয় তারপরও মজুতকৃত মোট পেঁয়াজের এই পরিমাণ চাহিদার তুলনায় অনেক বেশি।

তাহলে পেঁয়াজের দাম বাড়ছে কেন এই প্রশ্ন ভোক্তাদের? আমদানিকারকদের ভাষ্যমতে যেহেতু, মহারাষ্ট্র, কর্ণাটক, মধ্যপ্রদেশ সহ পেয়াজ সর্বরাহকারী রাজ্যগুলোতে বন্যা দেখা দিয়েছিল, তাই পেঁয়াজের আমদানি প্রতিটন পেঁয়াজের মূল্য ২০০ থেকে বেড়ে ৮৫০ ডলার হওয়ায় তার প্রভাব পড়েছে বর্তমান বাজারে।

গত মঙ্গলবার বানিজ্য সচিব ড. মোহাম্মদ জাফর উদ্দিন জানান, পেঁয়াজের মূল্য বৃদ্ধিরোধে বিভিন্ন পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। মিয়ানমার, মিশরসহ বিভিন্ন দেশ থেকে পেঁয়াজ আমদানির উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। কিন্তু বাস্তবে দাম না কমে উলটো বাড়ছে।

নাদিম হাসান।। রিপোর্টার

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *