সন্ত্রাসী হামলায় আহত রংপুর মেডিকেলে চিকিৎসাধীন সাদুল্লাপুরের রাজ্জাক মারা গেছেন

Share This Story !

স্টারবার্তা রিপোর্ট: গাইবান্ধা সাদুল্লাপুর উপজেলার কোনাপাড়ায় নিজ বসতবাড়ির সীমানা ঠিক করে নতুন বাড়ির ভিত্তি স্থাপন করতে যান ডাঃ রোস্তমের বড় পুত্র আব্দুর রাজ্জাক। বাড়ির সীমানার কাজ চলা অবস্থায় সীমনার পাশে থাকা জমির মালিক ও তাদের ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীসহ ১৫-২০ জনের হামলায় প্রথম দফায় আহত হন রাজ্জাক।

পরবর্তিতে আহত রাজ্জাককে উদ্ধার করতে এগিয়ে আসেন তার ছোট ভাই আনোয়ার, নুরে আলম ও তাদের বয়স্ক মা আতন। তারাও ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীদের হামলার স্বীকার হলে প্রতিবেশীরা আহতদের মেডিকেলে ভর্তি করান। হামলাকারীরা হলেন মোঃ হয়রত আলী, মোঃ হারুনর রশীদ মধু, হান্নান মকুল, আকুল, কামরুজ্জামান, কাওসার আলী, হয়রত আলী পুত্র খোকন, শোভনসহ ১৫-২০ জন।

আগে থেকেই ওতপেতে থাকা হামলায় অংশগ্রহণকারীদের হাতে ডেগার,ডেগি,রামদা,এসএস পাইপ,রড, চাইনিজ কুড়াল, লাঠিসোটাসহ দেশী অস্ত্র নিয়ে তাদের উপর হামলা করেন বলে নিহত রাজ্জাকের ছোটভাই নুরে আলম জানান। নুরে আলম আরো জানান হামলার জন্য পলাশবাড়ী উপজেলা থেকে ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী ও নিষিদ্ধ সংগঠনের কয়েকজন সদস্য এনেছিলো হয়রত আলীরা।

ডেগার লাঠি ও রডের আঘাতে আহত রোস্তম ডাক্তারের ছেলে আঃ রাজ্জাক কে রংপুর মেডিক্যালে ভর্তি করা হলে ৩ দিন চিকিৎসাধীন থাকা অবস্হায় আজ ১২ টার সময় মারা গেছে বলে তার পরিবার জানান,এ ব্যাপারে থানায় মামলা হয়েছে।

নিহত রাজ্জাকের বৃদ্ধ মা, ছোট ও আত্মীয়- স্বজনরা এই মর্মান্তিক মার্ডারের সাথে জড়িতদের অনতিবিলম্বে আইনের আওতায় এনে সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করেন।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *