করোনায় জাবি ছাত্রলীগ নেত্রী এশা’র বিরামহীন ছুটে চলা

Share This Story !

জাবি ছাত্রলীগ নেত্রী এশা

করোনা ভাইরাসে থমকে গেছে সারাদেশ। সারা বিশ্বের সাথে পাল্লা দিয়ে জ্যামিতিক হারে দেশব্যাপী বাড়ছে আক্রান্তের হার। এই সংকটময় পরিস্থিতিতে করোনা মোকাবেলায় আর্ত মানবতার সেবায় অনেকেই ভালোবাসার হাত বাড়িয়ে দিচ্ছেন।

‘আকলিমা আক্তার এশা’, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অনেকেরই পরিচিত মুখ। বিশেষ করে ছাত্রলীগের সবাই তাকে চেনেন। তিনি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কার্য-নির্বাহী সংসদের সাবেক সদস্য।

ছাত্রলীগ নেত্রী এশা বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন এলাকায় অসহায় মানুষের মাঝে নিজ উদ্দ্যোগে প্রথমে উপহার বিতরণ করে বেশ আলোচনায় ছিলেন। এরপর জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অস্বচ্ছল শিক্ষার্থীদের বিভিন্নভাবে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়া ও ক্যাম্পাসে অভুক্ত থাকা বিভিন্ন প্রানীদের নিয়মিত খাবার প্রদান করে ব্যাপক প্রশংসা কুড়িয়েছেন। এবার তিনি নিজ গ্রামে থাকা অসহায় ও দুস্থ পরিবারের মাঝে উপহার সামগ্রী বিতরণ করে সর্বমহলে ব্যাপক প্রশংসিত হয়েছেন। জানা যায়, বিগত কিছুদিন যাবৎ তিনি পরিবারের পক্ষ থেকে নিজ গ্রামে বিভিন্ন অসহায় ও দুস্থদের মাঝে ভালোবাসার ‘উপহার’ পাঠাচ্ছেন।

করোনায় ছাত্রলীগ নেত্রী এশা’র বিরামহীন ছুটে চলা!
‘নিজ গ্রামে অসহায়-দুস্থ পরিবারে উপহার পাঠাচ্ছে এশা।’
এই ব্যাপারে এশা বলেন, ‘আমি দেশরত্ন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ও কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্দেশে করোনা প্রাদুর্ভাবের শুরু থেকে বিভিন্ন শ্রেনীর মানুষের পাশে থাকার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। আপনারা জানেন, এর আগে আমি তালিকা করে গোপনীয়তা রক্ষা করে বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন এলাকায় অসহায় মানুষের পাশে এসে দাঁড়িয়েছি। এবার মূলধারা থেকে বেরিয়ে এসে ভিন্ন কিছু করার চেষ্টা করছি। অনেকেই অসহায়, দুস্থ পরিবারের মাঝে উপহার পাঠাচ্ছেন কিন্তু নিজ গ্রামের পরিবারগুলোর কথা অনেকেই ভাবছেন না। আমি চেষ্টা করেছি, আমার পরিবারের থেকে এসব মানুষের পাশে এসে দাঁড়াতে। তাই, গতকিছুদিন যাবৎ বিভিন্ন ভালোবাসার ‘উপহার’ নিয়ে তাদের পাশে এসে দাঁড়াচ্ছি।’

এভাবে সকলের দোয়া ও ভালোবাসা নিয়ে করোনা মোকাবেলায় নানা ধরনের ব্যতিক্রমী উদ্দ্যোগ নিয়ে বিভিন্ন শ্রেনীর মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আশা ব্যক্ত করেছেন ছাত্রলীগ নেত্রী আকলিমা আক্তার এশা।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *