হোপেস হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের পক্ষ হতে প্রতিবাদ

Share This Story !

হোপেস হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের পক্ষ হতে প্রতিবাদঃ “সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদ” শিরোনামে স্টার বার্তার নিজেস্ব প্রতিবেদকের নিকট প্রতিবাদ লিপি পাঠিয়েছেন হোপেস কলেজ কর্তৃপক্ষ। আমাদের বিশেষ প্রতিবেদক সরে জমিনে গিয়ে ও কলেজের কয়েকজন শিক্ষক- কর্মকর্তা ও কর্মচারীর সাথে কথা বলে প্রতিবাদের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। প্রতিবাদটি হুবহু পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো। বাংলাদেশ প্রতিদিন পত্রিকার ১ম পৃষ্ঠায় বিগত ১৫ই সেপ্টেম্বর ২০২০ ইং রোজ মঙ্গলবার প্রকাশিত শিরোনামে “কোটি টাকার প্রতারণা হোমিও দুই ডাক্তার” এর প্রতিবাদে হোপেস হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের সকল শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের পক্ষ থেকে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। উক্ত সংবাদে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনিয়র মেডিকেল অফিসার জনাব ডাঃ আবদুর রাজ্জাক তালুকদার এর বিরুদ্ধে যে অভিযোগ করা হয়েছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট, ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত।

ডাঃ আবদুর রাজ্জাক তালুকদার কেবল মাত্র হোপেস হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজের উদ্যোক্তা, প্রতিষ্ঠাতা এবং কলেজ ম্যানেজিং কমিটির সহ-সভাপতি। এই কলেজ প্রতিষ্ঠা করতে তার নিজস্ব অর্থায়নে এবং ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে যাচ্ছেন। তিনি কলেজের নিয়োগকৃত শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের কাছ থেকে ব্যক্তিগতভাবে কোন আর্থিক সুবিধা গ্রহণ করেননি।

হোপেস হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালটি বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথি বোর্ডের অনুমোদিত কলেজ এবং কলেজের পূর্ণাঙ্গ একটি শক্তিশালী ম্যানেজিং কমিটি আছে। কলেজের শিক্ষক নিয়োগ, আর্থিক হিসাবে ম্যানেজিং কমিটির মাধ্যমে পরিচালিত হয়। কলেজের জমি ক্রয় বাবদ যে খবর প্রকাশ হয়েছে তা মিথ্যা ও বানোয়াট। কারণ জমিটি কলেজের নামে রেজিস্ট্রি করা হয়েছে এবং এখনও কলেজের জমিতে কলেজের নামেই সাইনবোর্ড লাগানো আছে। হোমিওপ্যাথি বোর্ডের মাননীয় চেয়ারম্যান রেজিস্ট্রারার ও সদস্যবৃন্দ ইতিমধ্যে কলেজের জমি এবং বর্তমান অবস্থান পরিদর্শন করেছেন।

পরবর্তীতে মন্ত্রণালয়ের পরিদর্শন টিম, হোমিও দেশজ চিকিৎসা স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের পরিদর্শন টিম এবং হোমিওপ্যাথি বোর্ডের রেজিস্ট্রারার কলেজটির বর্তমান অবস্থান পরিদর্শন করেছেন। সংবাদে প্রকাশিত কলেজের কিছুই নেই কথাটি সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন। এখানে ডাঃ আবদুর রাজ্জাক তালুকদার এর সাথে উক্ত প্রকাশিত সংবাদের কোন মিল নেই। হোপেস হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের সকল শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ আমরা মনে করি সংবাদে প্রকাশিত অভিযোগগুলো মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন। আমরা প্রকাশিত সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। নিন্মোক্ত সকল শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারীর নাম ও স্বাক্ষর করলাম।

Najmul Shohag

You missed a call from Najmul.14:42Call back

Najmul Shohag

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *